সকালবেলা খালি পেটে চা নাকি কফি, কোনটা ভালো আপনার জন্য?

tea_coffe_swadeshnews24সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠে এক কাপ চায়ের পেয়ালা হাতে বসা বাঙালির বহু পুরনো অভ্যাস। সাথে হয়তো একটু বিস্কুট বা মুড়ি বা টোস্ট সঙ্গী অনেকের। অনেকের সঙ্গী স্বাস্থ্যকর রঙ চা। ঘুম থেকে উঠে চা না হলে আমাদের অনেকেরই দিনই শুরু হয় না মোটেও। আজকাল অবশ্য এই চায়ের স্থান দখল করে নিয়েছে কফি। অনেকেই সকাল সকাল ঝুঁকে যাচ্ছেন এক পেয়ালা ধূমায়িত কফির দিকে। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, সকাল সকাল ঘুম থেকে ওঠার পর খালি পেটে কোনটি ভালো আপনার জন্য, চা নাকি কফি? চলুন, জেনে নিই।

সত্য কথাটি হচ্ছে, সকাল বেলা চা কিংবা কফি দুটিই আপনার জন্য খারাপ! হ্যাঁ, যুগে যুগে কালে কালে ঘুম থেকে উঠেই চা/কফির মত ক্যাফেইন জাতীয় পানীয় পান করার অভ্যাস বিশ্বজুড়ে প্রচলিত। কিন্তু অভ্যাসটি আসলে ভালো নয় একটুও। হয়তো চা-কফির সাথে আপনি একটু বিস্কিট, মুড়ি বা টোস্ট খাচ্ছেন কিন্তু সেটা আসলে বিশেষ কোন উপকার করে না। সকাল বেলা খালি পেটে চা-কফি খাওয়া আপনার পাকস্থলীর ক্ষতি করে, হজমের সমস্যা ও গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা বৃদ্ধি করে, শরীরকে অনেক বেশী পানি শুন্য করে ফেলে। এসব ছাড়াও আছে হরেক অপকারিতা।

স্পনি যখন সকালে ঘুম থেকে ওঠেন, দীর্ঘ ৮-১০ ঘণ্টা পাকস্থলী খালি থাকার ফলে স্বভাবতই খিদে পায়। খিদে না পেলেও শরীর কিন্তু এই সময়ে খাবার ও পানির জন্য ব্যাকুল হয়ে থাকে। তাই সকালে ঘুম থেকে উঠে প্রথমেই এক গ্লাস সাধারণ তাপমাত্রা বা উষ্ণ তাপমাত্রার পানি পান করা উচিত এবং সেটা আপনার জন্য খুবই ভালো। আপনি চাইলে পানিতে মধু মিশিয়েও খেতে পারেন। কিন্তু চা-কফি পান কখনোই করা উচিত নয়।

তাহলে চা-কফি কখন?

অনেকে সকালের নাস্তার পরইপরই চা কফি পান করেন। নাস্তার আগে চা-কফি তো চলবেই না, নাস্তা করার ঠিক পর পরও নয়। চা পাতার এসিডিক উপাদান প্রোটিন জাতীয় খাবার হজমে সমস্যা তৈরি করে। এছাড়াও খাওয়ার পরপরই চা-কফি পান করলে খাবার হতে আয়রন শোষিত হয় না। চা-কফি যদি পান করতেই হয়, সেটি করুন নাস্তা করার ২০-৩০ মিনিট পর। রঙ চা হোক, গ্রিন চা হোক কিংবা চিনি ছাড়া ব্ল্যাক কফি, যতই স্বাস্থ্যকর পানীয় হোক না কেন সকাল বেলা খালি পেটে ক্যাফেইন জাতীয় কোন পানীয়ই আপনার জন্য ভালো নয়।

 

সোর্সঃ ইন্টারনেট

1

No Responses

Write a response