যাত্রীবাহী বিমানের গতিপথ বদলে দিতে পারেন হ্যাকাররা

যাত্রীবাহী বিমানের গতিপথ বদলে দিতে পারেন হ্যাকাররাওয়াই ফাইয়ের মাধ্যমে উপগ্রহ যোগাযোগ এবং বিনোদন ব্যবস্থায় সাইবার হামলা চালিয়ে যাত্রীবাহী বিমানের গতিপথ ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা বদলে দেয়া সম্ভব। সাইবার নিরাপত্তা সংক্রান্ত গবেষক রুবেন সানতামারতা এ কথা জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, বর্তমানে যাত্রীবাহী বিমানের উপগ্রহ যোগাযোগ এবং বিনোদন ব্যবস্থা উন্মুক্ত রয়েছে। এ ব্যবস্থায় যাতে পরিবর্তন আনা হয় এবং যাত্রীবাহী বিমানের নিরাপত্তা ব্যবস্থার ত্রুটিগুলো দূর করা হয় সেজন্য এটি তিনি প্রকাশ করেছেন।

বার্লিন-ভিত্তিক হ্যাকার সানতামারতা আরো বলেন, বিমান শিল্পে ব্যবহৃত ফার্মওয়্যার বা কেবলমাত্র সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞদের ব্যবহারের জন্য তৈরি উচ্চ পর্যায়ের বিশেষায়িত সফটওয়্যার বিশ্লেষণ করে যাত্রীবাহী বিমানের ভয়াবহ এ নিরাপত্তাহীনতার বিষয়টি তিনি জানতে পেরেছেন। রিভার্স ইঞ্জিনিয়ারিং নামে পরিচিত সংকেত মোচন বা ডিকোডিংয়ের মাধ্যমে এ সব ফার্মওয়্যারকে বিশ্লেষণ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

রুবেন সানতামারতা আরো বলেন, বিমানের ওয়াই ফাই এবং বিমানের ভেতরের বিনোদন ব্যবস্থাকে ব্যবহার করে অন্তত এই মুহূর্তে তত্ত্বগতভাবে সাইবার হামলা চালাতে পারেন একজন হ্যাকার। এভাবে সাইবার হামলা চালিয়ে বিমান চালনার জন্য ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি এবং উপগ্রহ যোগাযোগ ব্যবস্থাকে অচল করে দেয়া বা মারাত্মকভাবে বদলে দেয়া সম্ভব। এতে বিমানের ন্যাভিগেশন বা গতিপথ বদলে যেতে পারে বা আমূলে বদলে যেতে পারে নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

অবশ্য বিমানের যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ অন্যান্য যন্ত্রপাতি নির্মাতা কয়েকটি সংস্থা এ ধরণের হুমকিকে আমলে নিতে চায় নি।

আগামী বৃহস্পিতবার লাস ভেগাসে অনুষ্ঠেয় ব্ল্যাক হ্যাট নামের সাইবার হামলা ও হ্যাকিং বিষয়ক বার্ষিক কনভেনশনে এ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরবেন তিনি। সাইবার হুমকি এবং নিরাপত্তা ব্যবস্থা উন্নয়ন সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনার জন্য গুরুত্বপূর্ণ এ কনভেনশনে বিশ্বের হাজার হাজার হ্যাকার এবং নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা যোগ দেবেন।

১৯৯৭ সালে ব্ল্যাক হ্যাট প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। সে থেকে সাইবার হামলা নিয়ে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য এ কনভেনশনে তুলে ধরেছেন হ্যাকার ও সাইবার নিরাপত্তায় জড়িত ব্যক্তিরা। ২০০৯ সালে টেক্সট মেসেজ পাঠিয়ে আইফোন হ্যাক করার বিষয়টি এ কনভেনশনে তুলে ধরার পর টনক নড়ে অ্যাপেলের এবং এ ক্রুটি দূর করার জন্য একটি প্যাচ তৈরি করে তারা। সূত্র: আইআরআইবি।

সোর্সঃ ইন্টারনেট

No Responses

Write a response