মাত্র ২৪ বলে অপরাজিত ১০১ রানের এক ইনিংস!!=সাকিব আল হাসান

sakib-2জিম্বাবুয়েকে ধবলধোলাই করার একদিনও পার হয়নি! আবারও ব্যাট হাতে মাঠে নেমে পড়লেন সাকিব আল হাসান! শুধু মাঠে নামাই নয়, রীতিমত বিধ্বংসী একটি ইনিংসও খেলে ফেলেছেন। মাত্র ২৪ বলে অপরাজিত ১০১ রানের এক ইনিংস!! চোখ কপালে তোলার মতই ব্যাপার-স্যাপার।

ভাবছেন কোন ভিডিও গেম! নয়তো কোন বিজ্ঞাপন চিত্র!! আসলে এগুলোর কিছুই না। ঠিকই ব্যাট হাতে মাঠে নেমেছিলেন সাকিব। তবে সেটা একটি চ্যারিটি ম্যাচে, একঝাঁক ক্ষুদে-শিশুর সঙ্গে। ইউনিসেফের সহায়তায় ‘শিশুদের মুখোমুখি বড়রা’-শীর্ষক এক প্রদর্শনী ক্রিকেট ম্যাচে এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন সাকিব। ম্যাচটির আয়োজনে সহযোগিতা ছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডেরও (বিসিবি)।

শিশু অধিকার সনদ-এর (সিআরসি) ২৫তম বার্ষিকী উদযাপন উপক্ষে ইউনিসেফ বাংলাদেশ ও বিসিবি মিরপুরের একাডেমি মাঠে এই প্রদর্শনী ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজন করে। ইউনিসেফের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে এই ম্যাচে অংশ নেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তার নেতৃত্বেই ম্যাচে অংশ নেয় কিশোর ক্রিকেটাররা।

জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক ও সাংসদ নাইমুর রহমান দুর্জয়ের নেতৃত্বে অন্য দলটিতে ছিলো রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক এবং সাকেব ক্রিকেটাররা।

মঙ্গলবার দলের প্রদর্শনী ম্যাচে জয় পেয়েছে সাকিবের কিশোর দলই। প্রথমে ব্যাট করে নাইমুর রহমানের দল ১০ ওভারে স্কোরবোর্ডে তোলে ১২৮ রান।

জবাবে সাকিব আল হাসান কিশোরদের নিয়ে ব্যাট করতে নেমে নিজেই ২৪ বলে ১০১ রান করে অপরাজিত থেকে শেষ বলে জয় নিশ্চিত করেন।

প্রদর্শনী ম্যাচ শেষে শিশু-কিশোর আর কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাকিব আল হাসান ২৪ বলে সাকিবের ১০১*!
প্রদর্শনী ম্যাচ শেষে জিম্বাবুয়েকে ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করা নিয়ে সাকিব বলেন, ‘আমি আগের মতোই আছি। আমার কাছে নতুন কিছু মনে হয়নি। বিশ্বকাপের আগে দারুণ একটা সিরিজ হয়েছে। দলের জ্ন্য এমন ফলাফল খুবই প্রয়োজন ছিলো। এখন বিশ্বকাপেও ভালো কিছু করা সুযোগ থাকবে।’

বিসিবি ও ইউনিসেফের প্রদর্শনী ক্রিকেট আয়োজন নিয়ে সাকিব বলেন, ‘এটা একটা মজাদার আয়োজন। এরকম উদ্যেগ আরও বেশি করে নেওয়া উচিত। শিশুদেরকে উৎসাহ দেওয়ার জন্য দেশের নাগরিক হিসেবে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। আজ এই প্রদর্শনী ক্রিকেটে ছেলে-মেয়েরা খুবই আনন্দ করেছে। আমি ভাবতেই পারিনি ওরা এতো ভালো ক্রিকেট খেলে।’

ছেলে-মেয়েরা কেন আপনাকে (সাকিবকে) এত বেশি পছন্দ করে? এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘একটা কারণ হতে পারে, ইউনিসেফের সঙ্গে বহুদিন ধরেই আছি সে কারণে। আবার অন্য একটি কারণ হতে পারে, সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার বিজ্ঞাপনের জন্য। কারণ অনেক বাবা ও মা’ই চায় সাবান দিয়ে ওরকম করে বাচ্ছাদের হাত পরিস্কার করাতে।’

 

Posted by Ab Emon

সোর্সঃ ইন্টারনেট

No Responses

Write a response