মজার মানুষদের কম বয়সে মৃত্যুর আশঙ্কা!

শিরোনাম দেখে অবাক হচ্ছেন? কিন্তু সাম্প্রতিক একটি গবেষণা কিন্তু এ কথাই বলছে। অস্ট্রেলিয়ার দুই গবেষক ৫৩ জন কৌতুক অভিনেতার উপর গবেষণা করে এই ধারণা পেয়েছেন। আন্তর্জাতিক এক জার্নালে গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে।

 

গত আগস্টে মার্কিন জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা রবিন উইলিয়ামসের ৬৩ বছর বয়সে আত্মহত্যা করার ঘটনাটি অস্ট্রেলীয় গবেষকদের এ ধরনের গবেষণা কাজে আগ্রহী করে তোলে।

 

অস্ট্রেলিয়ার ক্যাথলিক ইউনিভার্সিটির ‘ম্যারি ম্যাককিলপ ইনস্টিটিউট অফ হেলথ রিসার্চ’-এর গবেষক অধ্যাপক সিমন স্টুয়ার্ট ও অধ্যাপক ডেভিড থমসন গবেষণাটি পরিচালনা করেন। গবেষণাটি ‘ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অফ কার্ডিওলজি’তে প্রকাশিত হয়েছে।

 

গবেষণায় পাওয়া মূল তথ্যটি হচ্ছে, মজার মানুষ হওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক। একজন কৌতুক অভিনেতা যত বেশি মজার, তার আয়ুস্কাল তত কম হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

 

কমেডিয়ানদের র‌্যাঙ্কিং করে এমন একটি ওয়েবসাইটের সহায়তা নিয়ে গবেষকরা ৫৩ জন ব্রিটিশ ও আইরিশ কৌতুক অভিনেতার উপর এই গবেষণা করেন। গবেষকরা আবার এদের মধ্য থেকে নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী ২৩ জনের একটি তালিকা তৈরি করেন, যাদের গবেষকরা ‘এলিট’ কমেডিয়ান বলে মনে করেছেন। গবেষণায় দেখা যায়, এই ২৩ জনের মধ্যে ৭৮ শতাংশ অভিনেতাই কম বয়সে মারা গেছেন।

 

অধ্যাপক স্টুয়ার্ট তাদের গবেষণা নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার এবিসি-তে একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। সেখানে তিনি বলেন, ‘নীচুমান ছাড়া উঁচুমান থাকতে পারে না। মানুষকে হাসানোর ক্ষেত্রে এই অভিনেতারা অনেক উঁচু মানের পরিচয় দিয়েছেন। কিন্তু তাই বলে কি আমরা একটা বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারি যে, তাদের পুরো জীবনটাই হাসির মধ্য দিয়ে গেছে?

 

‘ব্যক্তিগত জীবনে অনেক কমেডিয়ানই সাঙ্ঘাতিকভাবে অস্বাভাবিক মানসিক অবস্থা বা মনোবৈকল্য, বিষাদ ইত্যাদির মধ্য দিয়ে যান’, বলেন অধ্যাপক স্টুয়ার্ট।

 

সূত্র : ডয়চে ভেল

 Post by আশিকুর রহমান স্বদেশনিউজ২৪.কম

সোর্সঃ ইন্টারনেট

No Responses

Write a response