ভি পি এস হোস্টিং এবং ডেডিকেটেড হোস্টিং/সার্ভার এর পার্থক্য কি? অনেকেই গুলিয়ে ফেলেন। তাই আজকে সহজ ভাষায় বুঝিয়ে দিচ্ছি

আশা করি সবাই ভালো আছেন। আমিও ভালো আছি। অনেকদিন ধরে কোন পোস্ট করা হয় না। আসলে কাজের চাপে সময় পাইনা। তবে মন সব সময় পরে থাকে ব্লগে। কারন আমি একজন ব্লগের পাগল ভক্ত। কারন এই ব্লগ আমাকে অনেক কিছু দিয়েছে, অনেক কিছু শিখিয়েছে। যাহোক এসব বাদ এখন কাজের কথায় আসি।

প্রথমে আসি ডেডিকেটেড হোস্টিং/সার্ভার কি?

সার্ভার মানে এমন কিছু না। এগুলোও হল কম্পিউটার। তবে ছোট সাইজ এর জাতে একসাথে অনেক কম্পিউটার এক জায়গায় রাখা যায়।

যাহোক এখন সব ছেয়ে সহজ ভাষায় বলি ডেডিকেটেড হোস্টিং/সার্ভার কি?। যখন একটা কম্পিউটার পুরটাই একটা সার্ভার হিসাবে ব্যবহার করা হয় তখন এটাকে বলে ডেডিকেটেড সার্ভার। আর এই ডেডিকেটেড সার্ভার এর হোস্টিং কে আমরা বলি ডেডিকেটেড হোস্টিং। আপনি চাইলে অনেক কঠিন করে বলতে পারেন অথবা কঠিন করে শিখতে পারেন তবে মুল কথা এইটাই।

 

এখন আসি ভি পি এস হোস্টিং/সার্ভার কি?

ভি পি এস মানে হল ভার্চুয়াল প্রাইভেট সার্ভার। নাম শুনে কিছু বুঝলেন। না বুঝলেও কোন সমস্যা নাই। যখন একটা কম্পিউটার কে বিশেষ কোন সফটওয়্যার বা অন্য কিছু দিয়ে ভাগ করে অনেক গুলো সার্ভার তৈরি করা হয় তখন প্রত্যেক ভাগকে এক একটা  ভি পি এস বলে। আশা করি বুঝতে পারছেন।

এখন আসি আপনি কন সার্ভার কে ভালো মনে করবেন?

ভালো যদি বলতে হয় তাহলে আমি অবশ্যই বলব ডেডিকেটেড সার্ভার। কারন হল যখন একটি কম্পিউটার কে ভি পি এস করা হয় তখন যে কয়টা ভাগ করা হয়েছে সেখান কার ক্ষমতা বা স্পীড ফিক্সড করে দেয়া হয়। এখন মনে করেন একটা ভি পি এস এ হঠাত করে বেশি লোড পড়লো কিন্তু বাকি ভি পি এস এ তেমন কোন লোড নেই তারপরেও এটি বাকি ভি পি এস থেকে কোন হেল্প পাবে না। কিন্তু ডেডিকেটেড সার্ভার একটা পুরো কম্পিউটার হওয়ায় জেকন সাইট এ যদি হটাত করে বেশি লোড পরে তাহলে বাকি সাইট ঠিক রেখে অবশিষ্ট সব স্পীড সে ব্যবহার করতে পারবে।

এ দিক দিয়ে ডেডিকেটেড সার্ভার বা হোস্টিং আমি মনে করি অনেক ভালো।

ডেডিকেটেড সার্ভার এ আপনি ইচ্ছা মতো কনফিগারেশন বাড়াতে পারেন সহজেই কিন্তু ভি পি এস এ একটু জটিলতা পোহাতে হতে পারে।

তবে ভি পি এস যে খারাপ তা বলছি না। যদি পার্সোনাল সাইট হয় অথবা সাইট এ ভিসিটর তেমন না থাকে সে ক্ষেত্রে আপনার জন্য আমি বলব ভি পি এস বেস্ট। কারন ভি পি এস এর চেয়ে ডেডিকেটেড হোস্টিং এর দাম একটু বেশি হতে পারে। তাই অযথা বেশি টাকা খরচের দরকার কি।

এতক্ষণ ধরে যা বললাম তা হল শেয়ারড হোস্টিং এর কথা। মানে হল কোন কোম্পানি থেকে আপনি মনে করেন  ১/২/৩ জিবি নিয়ে একটা সাইট হোস্ট করলেন। কারন একটা কোম্পানি একটা ভি পি এস দিয়ে অনেক সাইট চালায় বা একটা  ডেডিকেটেড সার্ভার দিয়ে অনেক সাইট চালায়। তাই স্পীড অনেক ভাবে ভাগ হয়ে যায়।

তবে যদি আপনার সাইট এর ভিসিটর অনেক বেশি হয় তবে আপনি পুরো একটা ভি পি এস নিয়ে নিতে পারেন। এটা সবচেয়ে ভালো হবে। একটা ভি পি এস এ সুধু আপনার একটা সাইট চলবে। সুতরাং স্পীড এর কোন সমস্যা হওয়ার কথা না। এমন যদি হয় আপনার সাইট এর ভিসিটর আত বেশি যে একটা ভি পি এস দিয়েও কাজ হচ্ছে না সেক্ষেত্রে ডেডিকেটেড সার্ভার নিতে পারেন।

আমাদের দেশে অনেকেই ডেডিকেটেড হোস্টিং প্রদান করে থাকে।

আমার জানা মতে অনেক কোম্পানির মধ্যে

# Eicra

# eHostBD

# Hostpair

# xeonbd

arfitech

hostingbangladesh

সহ আরও অনেক ভালো ভালো কোম্পানি আছে বাংলাদেশ এ। সবার নাম এই মুহূর্তে আমার মনে নাই। তবে যাদের নাম লিখলাম না তাদের মন খারাপ করার কিছু নাই।

আমার লেখার মধ্যে কোন ভুল থাকলে আশা করি কমেন্ট করে জানাবেন।

 

প্রথমে লিখেছিলাম অ্যানিটেক টিউন এ। ভালো লাগলে একবার ঘুরে আসতে পারেন। প্রথম প্রকাশের লিঙ্ক 

1

No Responses

Write a response