বালিকা খায় না, ঘুমায় না, ব্যথাও পায় না’

ইংল্যান্ডের রোবট বালিকা অলিভিয়া

সাত বছরের ব্রিটিশ বালিকা অলিভিয়া ফার্নওয়ার্থ খাবার খায় না বললেই চলে। ঘুমের বেলাতেও একই রকম। ওই বালিকার ব্যথাবোধও কম। স্বাস্থ্য পরীক্ষায় পুরোপুরি বিভ্রান্ত করে দেওয়া এই বালিকাকে চিকিৎসকরা বলেন ‘রোবট বালিকা’।
ইংল্যান্ডের পশ্চিম ইয়র্কশায়ারের হাডার্সফিল্ড শহরে মা-বাবা ও ভাইবোনের সঙ্গে বসবাস অলিভিয়ার। সেখানেই একটি গাড়ির ধাক্কা খাওয়া এবং গাড়িতে কিছুদূর টেনে নিয়ে যাওয়ার পরও কোনো কান্না করেনি সে। বিষয়টি চিকিৎসকদের নজরে আসে। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, এই শিশু বালিকা তিনদিন, তিন রাত না ঘুমিয়ে কাটিয়ে দেয়। খাবার খায় একদমই কম।

অলিভিয়ার অস্বাভাবিকতাকে নতুন কিছু নয় বলে মনে করেন চিকিৎসকরা। তাঁদের মতে, ‘ক্রোমোজোম সিক্স মুছে যাওয়া’ নামক বিরল রোগের কারণে মানুষের মধ্যে এমন একটি অস্বাভাবিকতা দেখা যায়। তবে একই সঙ্গে তিনটি অস্বাভাবিকতার ঘটনা এই প্রথম।

অলিভিয়ার মা নিকি ট্রিপ্যাক (৩২) বলেন, তাঁর এই মেয়ের মধ্যে বিপদ সম্পর্কে কোনো ধারণা নেই। রাস্তায় গাড়িতে ধাক্কা লাগা এবং গাড়িতে কিছুদূর টেনে নিয়ে যাওয়ার পরও তাঁর কোনো অভিযোগ নেই। গাড়িটি কিছুদূর টেনে নিয়ে গিয়েছিল অলিভিয়াকে। ওই সময় নিকি ট্রিপ্যাক নিজে এবং তাঁর সন্তানরা চিৎকার করছিলেন। তবে নির্বিকার ছিল অলিভিয়া। কিছুই ঘটেনি এমনভাবে সে আবার ফিরে যায়। আর এত বড় দুর্ঘটনায় তাঁর ক্ষত হয় শুধু হাত ও পায়ে। চিকিৎসকদের মতে, ভয় পেয়ে বোকার মতো কিছু করে না বসার কারণেই গাড়ির আঘাত ও টেনে নেওয়া সত্ত্বেও বেঁচে যায় অলিভিয়া।

নিকি ট্রিপ্যাক আরো বলেন, অলিভিয়ার নয় মাস বয়সের ঘুম না হওয়ার বিষয়টি চোখে পড়ে। আর চার বছর পর্যন্ত তার মাথায় স্বাভাবিকভাবে চুল গজায়নি। আর এখনো পর্যন্ত খুবই কম খাবার খায় অলিভিয়া। মাঝেমধ্যে শুধু মাখনের স্যান্ডউইচ খেয়েই এক বছর কাটিয়েছে সে। এখন মজেছে নুডলসে। মাঝেমধ্যে নুডলস খেলেই দিন পার হয়ে তার। অলিভিয়ার ভবিষ্যৎ নিয়ে মা-বাবার পাশাপাশি উদ্বিগ্ন চিকিৎসকরাও। এমন রোগের চিকিৎসা নেই বললেই চলে।

No Responses

Write a response