বাংলার সাহিত্যকে সামনের দিকে নিয়ে যেতে একটি নিঃসার্থ কার্যক্রম + জুন মাসের বাঙ্গালিমনা ম্যাগাজিন ডাওনলোড (সবার উপকারে আসবে গ্যারান্টেড))

বাংলার সাহিত্যকে সামনের দিকে নিয়ে যেতে একটি নিঃসার্থ কার্যক্রম + জুন মাসের বাঙ্গালিমনা ম্যাগাজিন ডাওনলোড (সবার উপকারে আসবে গ্যারান্টেড)

আসসালামু আলাইকূম । আশা করি আল্লাহর অশেষ রহমতে ভাল আছেন ।আগেই বলে রাখছি বাংলা সাহিত্য নিয়ে আমার ধারনা খুবি কমই ,আমি আছি সারাদিন টেকনোলজির সাথে । তবুও আজ আমি যে বিষয় নিয়ে আলোচনা করব সেইটা সম্পূর্ন সাহিত্য নিয়ে ।আজ আমাদের মাঝে নেই রবীন্দ্রনাথ , কাজী নজরুল । কিন্তু নিঃসন্দেহে বলতে পারি তাদের থেকেও অনেক মেধাবী ব্যক্তি আছে । সেই মেধাবী ব্যক্তিরা যদিও সাহিত্য চর্চা করে তারা হতে পারবে না কাজী নজরুল কিংবা সুকান্ত । আজকাল সাহিত্য হয়ে গেছে অর্থ উপার্জন করার একটা মাধ্যম । আপনিই চিন্তা করেন যখন ইন্টারমিডিয়েট এর বাংলা বইয়ের ছোটগল্প হৈমন্তী পড়েছিলেন তখন আপনি কী উদ্দেশ্যে পড়েছিলেন , অবশ্যয় পরীক্ষায় পাশ করার উদ্দেশ্যে ।সেই রকম বর্তমানে সব কিছুই সার্থ দিয়ে চলতেছে । কিন্তু তাই বলে কী সবাই সার্থপর মোটেও না । সাহিত্য চর্চা করে এই রকম আমার জানা বহু ব্যক্তিই দেখেছি -শুনেছি । আমি এমনও অনেক কবিতা , গল্প পড়েছি যা কিনা সুকান্ত , জসিম উদ্দিনের কবিতার সাথে সামিল করা যায় । বলতে দ্বিধা নেই কতগুলি তাদেরকেও পার করে দেয় (শুধুমাত্র আমার মতে) 🙂 । এখন আপনি বলতে পারেন তারা কোথায় ? তারাই হচ্ছে আমাদের আর আপনার গ্রামের রহিম – করিম । আমি আর আপনি যেমন নেট পাগল তাই ভিবিন্ন টেকনোলজি ব্লগে সারাদিন ঘুরে বেড়াই তেমনি তারাও সাহিত্য পাগন সারাদিন কবিতা-গল্প লিখে সময় কাটায় । এখন বলতে পারেন তাদের কবিতা কে পড়ে ? ভাই কে আর পড়বে আমি ,আপনি আর ৫-১০ জন ছাড়া । 🙂 তারপর কী ঘটে এই ক্ষমতাশীল প্রতিভাবন ব্যক্তিদের সাথে ? লিখতে লিখতে এক সময় তারা চিন্তা করে কী হবে এই সব করে আমার লিখাতো কোন ব্যাক্তির কাছে পৌছাচ্ছে না ।শুধু ঘরে পড়ে কাগজগুলি আবার নস্ট হয়ে যাচ্ছে । সে সময়ই হঠাৎ করে তার লিখা বন্ধ হয়ে যায় । অঙ্কুরেই বিনিস্ট হয়ে যায় এই প্রতিভাবন ব্যক্তিদের । সে কথাই চিন্তা করে আমরা আমাদের এলাকা থেকে ৫ জন ব্যক্তি একটা নিঃসার্থ কার্যক্রম শুরু করেছি । সে কার্যক্রম হবে সম্পূর্ন নতুন প্রতিভাবন ব্যাক্তিদের নিয়ে ।যারা শখের বসে ভিবিন্ন কবিতা, গল্প ,উপন্যাস ,প্রযুক্তি কথন ( সাহিত্যের যেকোন বিষয় ) লিখে থাকে । কিন্তু তার যথাযথ মূল্য থাকে না । আমরা তাদের লিখাগুলি সংগ্রহ করে লিখাগুলির মান দেখে নির্বাচিত লিখাগুলিকে আমরা প্রতিমাসে একটা ম্যাগাজিন আকারে বের করতেছি ।ম্যাগাজিন এখন পিডিএফ ভার্সনে করা হচ্ছে । শীগ্রয় আমরা এইটা প্রিন্ট ভার্সন ও বের করব প্রতি মাসে ( কার্যক্রম চলতেছে )।আমাদের এলাকায় আমরা এখন পর্যন্ত প্রায় ৪ টা স্কুলে লিফলেট বিতরন করা শেষ করেছি , সেখানেও প্রতিটি স্কুলের প্রধান শিক্ষক আমাদের কার্যক্রমকে অনেক উৎসাহিত করেছে ।তারা প্রতিটি ক্লাসে এই বিষয়ে নোটিশ পাঠিয়েছে 🙂 ।আশা আছে আস্তে আস্তে আমাদের জেলার সব স্কুল কলেজেও লিফলেট বিতরন করা হবে । আবার খুশির খবর হচ্ছে আমরা প্রতিমাসে সর্বাদিক নাম্বর পাওয়া (আমাদের ৫ জন বিচারক মন্ডলী দ্বারা ) ১ জন ব্যাক্তিকে প্রাইজবন্ড দেওয়া হবে 🙂 ( কার্যক্রম চলতেছে ) ।এছাড়াও লেখককে আরও উৎসাহিত করার জন্য আমাদের আরও অনেক প্লান আছে যেমমঃ প্রতি ছয়মাস অন্তর অন্তর একজন সেরা লেখককে পুরস্কার দেওয়া ,প্রতি ১ বছর অন্তর অন্তর টপ ৫০ জনের ভিতরে একজনকে পুরস্কার দেওয়া ইত্যাদি ইত্যাদি 🙂 । আবার মনে করবেন না লেখককে লিখার জন্য গোস দিতেছি 😛 । এইটা তার লিখার উৎসাহ এবং তার মনের স্পিড থাকার জন্য দেওয়া হইতেছে 🙂 । সেই ধারাবাহিকতায় আমরা গত মে মাসে আমাদের একটা পরীক্ষারমূলক ভার্সন বের করেছিলাম সেখানে প্রায় ১৫-২০ জন লেখক অংশগ্রহন করেছিল । এবারও কিন্তু পিছিয়ে নেই , মে মাসের ১ তারিখেও আমাদের বাঙ্গালিমনার পিডিএফ ভার্সন বের হয়েছে । এবারের টা ফুল ভার্সন বের হয়েছে । এখন থেকে প্রতি মাসেই বাঙ্গালিমনার নতুন সংস্করন বের হবে । ইচ্ছা করলে আপনিও লিখা জমা দিতে পারেন । পদ্ধতি পিডিএফ বইয়ের ভিতরে দেওয়া আছে 🙂 ।

 banglaimona


আর এক নজরে আমাদের বাঙ্গালীমনা কমিটির কার্‍যালয় থেকে কিছু কথা দেখে নিন ………

আমরা কিছু উদ্দেশ্য নিয়ে আমাদের বাঙ্গালীমনার কাজে হাত দিয়েছি।আমাদের উদ্দেশ্যগুলো হল-
-বাংলা সাহিত্যের প্রসার ঘটানো ।
-অপসংস্কৃতির কালো ছাঁয়া থেকে বাঙ্গালীকে রক্ষা করা ।
-বাংলাদেশের মানুষকে সংস্কৃতিমনা করা ।
-তরুণ প্রজন্মকে সাহিত্য চর্চার প্রতি উদ্বুদ্ধ করা ।
-নতুন প্রতিভাবান লেখকদের খুঁজে বের করা এবং জাতির কাছে পরিচয় করিয়ে দেওয়া ।
-জাতিকে সুন্দর ও সুস্হ সাহিত্য উপহার দেওয়া ।
-বাঙ্গালীর জাতীয় চেতনা ও ঐতিহ্যকে সমুন্নত রাখা।
আমরা আমাদের উদ্দেশ্যগুলো বাস্তবায়নে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।এই লক্ষে আমরা ম্যাগাজিনটিকে প্রতি মাসের ১ তারিখ ই-বুক(pdf) আকারে এবং বছরে দুই বার অর্থাৎ অর্ধবার্ষিকী ও বার্ষিকী প্রিন্ট ভার্সন তথা বই আকারে প্রকাশ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।প্রতি বছর সেরা ১০ লেখক নিবার্চিত করে তাদেরকে সনদ ও সম্মাননা দেওয়া হবে।এছাড়াও শিক্ষার স্তর ভিত্তিতেও সনদ ও পুরস্কার দেওয়ার ব্যবস্হা গ্রহণ করেছি।
আশা করি উদ্দেশ্যগুলো বাস্তবায়নে বাংলাদেশের সর্বস্তরের মানুষের সহায়তা পাব।আপনারা চাইলে আপনাদের মুল্যবান লেখা, মতামত, পরামর্শ ও গঠনমূলক অভি্যোগ আমদের কাছে মেইল করে আমাদের এই মহৎ কাজকে আরো সুন্দর করতে পারেন।

সম্মানিত কমিটিমহোদয়ের পক্ষে-
জহির রায়হান মীর
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
বাঙ্গালিমনা


একনজরে এবারের সূচিপত্র দেখে নিনঃ

সূচিপত্রঃ

১. বাঙ্গালিমনা কমিটির কার্‍যালয় থেকে কিছু কথা
২. বাঙ্গালিমনায় লেখা পাঠানোর নিয়ম
৩. ইতিহাস থেকে
৪. কবিতা
৫. হাম নাথ
৬. হাস্যরস
৭. ছড়া
৮. ছোটগল্প
৯. প্রযুক্তি কথন
১০. কর্তব্যরত ব্যক্তিদের পরিচিতি


মে মাসের পিডিএফ ভার্সন সরাসরি ডাউনলোড করতে নিচে ক্লিক করুনঃ মাত্র ১.৮ মেগাবাইট

download now


ধন্যবাদ সবাইকে ।
অবশ্যয় আপনাদের আলোচনা -সমালোচনা জানিয়ে আমাদের প্রোজেক্টকে আরও সহযোগিতা করার জন্য আপনাদেরকে বিশেষ অনুরোধ করছি ।

আমি একজন ছাত্র । প্রযুক্তিকে খুব ভালোবাসি । তাই পড়ালেখার ব্যস্ততার মাঝেও চাই কিছু শেয়ার করতে ,মানুষকে কিছু জানাতে । আসলে আমার দ্বারা যদি কারো উপকার হয় তাহলে আমার যে কি আনন্দ লাগে তা বলে বুজাতে পারবো না । আমার মনে হয় সবারই এই রকম লাগে । তাই আজ থেকে আপনিও শুরু করে দিন ব্লগিং । আর কোন সহযোগিতা লাগলে অবশ্যয় আমাকে নক করবেন । আমার পোস্টগুলি কেমন লাগল তা অবশ্যয় কমেন্ট এ জানাবেন ।

মন্তব্যগুলি

মন্তব্যগুলি

1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (No Ratings Yet)
Loading...