‘পিঁপড়াবিদ্যা’ দেখতে দলে দলে হলে যাবে দর্শক-মোস্তফা সরয়ার ফারুকী

piprabidda-faruki-swadeshne‘পিঁপড়াবিদ্যা’ দেখতে দলে দলে হলে যাবে দর্শকws24আজ সারা দেশে মুক্তি পাচ্ছে মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত চলচ্চিত্র ‘পিঁপড়াবিদ্যা’। আর ফারুকী মানেই হলো ভিন্ন কোন কিছু। ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত ও জাজ পরিবেশিত এ ছবিটি নির্মাণের ঘোষণা দেয়ার পর থেকেই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে অবস্থান করছে। এদিকে মুক্তি পাওয়ার প্রায় এক মাস আগ থেকেই তরুণ দর্শকদের মধ্যেও ছবিটি নিয়ে দারুণ কৌতূহল চোখে পড়েছে। আর সেই কৌতূহল আরও বাড়িয়ে দিয়েছে ফারুকীর অভিনব কিছু প্রচারণা পন্থা। এরই মধ্যে কারিগরডটকম বের করেছে ‘পিঁপড়া বিদ্যা’র টি-শার্ট, যা ইতিমধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে তরুণদের মধ্যে। এখান থেকে নির্বাচিত পাঁচজন দর্শক প্রিমিয়ার শো দেখার সুযোগ পাচ্ছেন। এদিকে গত ১৫ দিনে এ ছবিটি নিয়ে বিভিন্ন টিভি টকশোতে অতিথি হয়ে আসছেন ফারুকী। গত তিন দিনে ‘পিঁপড়াবিদ্যা’ নিয়ে কমপক্ষে ৯টি টিভি টকশো এবং লাইভ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন তিনি। তার মানে বোঝাই যাচ্ছে ছবিটির প্রচারণা নিয়ে কতটা ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি। তবে ফারুকীর চোখেমুখে কোন ক্লান্তির ছাপ নেই। অন্যরকম এক স্বপ্ন নিয়ে ছুটে চলেছেন। দর্শকদের প্রত্যাশা পূরণে যা যা করার তাই করার চেষ্টা চালাচ্ছেন তিনি। রাজধানীর যমুনা ফিউচার পার্ক, বসুন্ধরা সিটিসহ দেশের ২১টি হলে মুক্তি পাবে ফারুকীর ক্যারিয়ারের পঞ্চম ছবি ‘পিঁপড়াবিদ্যা’। এর আগে তার পরিচালিত ‘ব্যাচেলর’, ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’, ‘থার্ড পার্সন সিঙ্গুলার নাম্বার’ এবং ‘টেলিভিশন’ নামে চারটি চলচ্চিত্র মুক্তি পায়। এ চারটি চলচ্চিত্রই ছিল দর্শক মহলে ব্যাপকভাবে প্রশংসিত। আর এ কারণেই তার ‘পিঁপড়াবিদ্যা’র প্রতি দর্শকের প্রত্যাশা এবার আকাশছোঁয়া। ফারুকীও প্রস্তুত সেই প্রত্যাশা পূরণে। মুক্তির আগেই সাংহাই, দুবাই, মেলবোর্নসহ বিভিন্ন উৎসবে এরই মধ্যে ছবিটি প্রদর্শিত হয়েছে। তবে এত কিছু থাকতে ছবির নাম ‘পিঁপড়াবিদ্যা’ কেন? অন্য কিছু তো হতে পারতো? উত্তরে ফারুকী আত্মবিশ্বাসী কণ্ঠে বলেন, ঠিকই বলেছেন। অন্য কোন বিদ্যাও হতে পারতো। কিন্তু অন্য কিছুর তো আর পাখা গজায় না। পিপীলিকারই শুধু পাখা গজায়। এ কারণেই আমার এ ছবির নাম ‘পিঁপড়াবিদ্যা’। আর হলে গিয়ে দর্শক যখন দেখবেন ছবিটি, তখনই নামের বিষয়টি অনুধাবন করতে পারবেন। মিঠু নামে একেবারেই নতুন একটি মুখকে ছবির নায়ক বানিয়ে ‘পিঁপড়াবিদ্যা’য় উপস্থাপন করেছেন ফারুকি। এটিকে ফারুকী স্টাইল বললেও ভুল হবে না। কারণ তার গল্প-নির্মাণশৈলী-নির্বাচনের প্রতি পুরোপুরি আস্থা দর্শকের রয়েছে। ছবির নায়িকা চরিত্রে দেখা যাবে ভারতীয় সুন্দরী শিনা চৌহানকে। এ দু’টি চরিত্র সম্পর্কে ফারুকী বলেন, মিঠু ছবিতে একজন গ্র্যাজুয়েট স্ট্রাগলিং যুবকের ভূমিকায় অভিনয় করেছে। এক সময় মিথ্য ও প্রতারণার আশ্রয় নেয় সে। মূলত ছবির গল্পটাও এ বিষয়টি নিয়েই। দুবাই কিংবা সাংহাই উৎসবে মিঠুর অভিনয় দারুণভাবে প্রশংসিত হয়েছে। সবাই বলেছেন অসাধারণ অভিনয় করেছে সে। সাধারণের মাঝ থেকে একটি অসাধারণ বিষয় বেরিয়ে আসুক সেটাই আমি চাচ্ছিলাম। সেদিক থেকে মিঠু সফল, সেটা দর্শক দেখলেই বুঝতে পারবেন। আর শিনা চৌহান ভারতীয় অভিনেত্রী সে কারণে তাকে নিইনি। এ চরিত্রের জন্য তাকে সঠিক মনে হয়েছে বলেই কাস্ট করেছি। দর্শক ছবি দেখেই মূল্যায়নটা করবেন। ‘পিঁপড়াবিদ্যা’ ছবিতে রয়েছে একটি গান। ‘লেজে রাখা পা’ শীর্ষক এ গানটি করেছে চিরকুট। ছবিটি থেকে নিজের প্রত্যাশা প্রসঙ্গে মোস্তফা সরয়ার ফারুকী বলেন, প্রত্যাশা বিষয়ে একটা কথাই বলবো। ‘পিঁপড়াবিদ্যা’ দেখতে দলে দলে হলে যাবে দর্শক। 

সোর্সঃ ইন্টারনেট

No Responses

Write a response