জানুয়ারিতে ঢাকায় আন্তর্জাতিক ফুটবল

47829_s1আগেও দু’বার বঙ্গবন্ধু কাপ আয়োজনের অনুমোদন দিয়েছিল বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের নির্বাহী কমিটি। দু’দুবারই তা পিছিয়েছে। তৃতীয়বারে এসে যেন আলোর মুখ দেখতে পাচ্ছে এই আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট। গতকাল বাফুফে’র জরুরি সভায় চূড়ান্ত হয়েছে বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপের প্রাথমিক দিনক্ষণ। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, লাওস, বাহরাইন ও স্বাগতিক বাংলাদেশকে নিয়ে  জানুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহে মাঠে গড়াবে আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টটি। বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপের তৃতীয় আসরের জন্য স্পন্সরও খুঁজে পেয়েছে বাফুফে। আগামী পাঁচ বছরের জন্য বঙ্গবন্ধু কাপ আয়োজন করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে বেসরকারি টেলিভিশন- ‘চ্যানেল নাইন’। টিভি রাইটস ও টুর্নামেন্টটির স্বত্ব বাবদ ছয় কোটি টাকা দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। প্রাথমিক ভাবে পাঁচ বছরের জন্য বাফুফে’র সঙ্গে চুক্তি করবে তারা। গতকাল জরুরি সভায় এসব তথ্য দেন বাফুফে’র সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদী। টুর্নামেন্টের ব্যাপারে বাফুফে’র সভাপতি কাজী মোহাম্মদ সালাউদ্দিন বলেন, সবকিছুই চূড়ান্ত, এখন আমাদের প্রথম কাজ হবে বঙ্গবন্ধুর নাম ব্যবহারের জন্য বঙ্গবন্ধু ট্রাস্টের অনুমতি নেয়া। এর আগেও বঙ্গবন্ধুর নামে দুটি ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে ঢাকায়। যার একটি ১৯৯৭ সালে অপরটি ১৯৯৯ সালে।
গত বছর থেকে আলোচনায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট। মধ্যপ্রাচ্যের অনেক দলকে আনার জন্য চিঠি চালাচালিও করেছিল বাফুফে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা সফল হয়নি। ফুটবল ফেডারেশন দেশের তখনকার রাজনৈতিক অস্থিরতার ওপর দায় চাপালেও ফেডারেশনের অর্থ সঙ্কট ছিল বড় একটা বাধা। ৫ই জানুয়ারি জাতীয় নির্বাচনের পর রাজনৈতিক অস্থিরতা না থাকায় আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট আয়োজনে কোন বড় বাধা ছিলো না। তার পরেও কেটে গেছে প্রায় একটি বছর। ঢাকার বাইরে তিন তিনটি আন্তর্জাতিক ম্যাচও অনুষ্ঠিত হয়েছে। দর্শকের তুমুল আগ্রহে টনক নড়েছে বাফুফে’র। দর্শকের আগ্রহ ধরে রাখতে গতকাল জরুরি সভা করেছে বাংলাদেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থাটি। সেখানেই সিদ্ধান্ত হয়েছে বঙ্গবন্ধু কাপ আয়োজনের।
গতকাল জরুরি সভা শেষে বাফুফে’র সিনিয়র সহ-সভাপতি সালাম মুর্শেদী বলেন, জানুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহে শুরু হচ্ছে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপ। আগামী ১৬ থেকে ১৮ই জানুয়ারির মধ্যে এই টুর্নামেন্ট শুরু করতে চাই আমরা। এই আসরের পুরো স্বত্ব। ৬ কোটি টাকার বিনিময়ে কিনে নিয়েছে চ্যানেল নাইন। আগামী ৫ বছরের জন্য তাদের সঙ্গে চুক্তি হবে, প্রতি বছর এই আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট করার জন্য। প্রতি বছর চুক্তি নবায়ন হবে। টুর্নামেন্টের ব্যাপারে বাফুফে’র সভাপতি সালাউদ্দিন বলেন, বঙ্গবন্ধুর নামে আগে দুটি টুর্নামেন্ট ঢাকায় অনুষ্ঠিত হলেও এবারের আয়োজনটি আগের দুই আসরকে ছাড়িয়ে যাবে। আগে তাদের চিন্তা ছিল আট দল নিয়ে আয়োজন করার এবং সে অনুযায়ী তারা কাতার, কুয়েত, ইয়েমেনসহ অনেক দলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল। সেই বড় চিন্তা থেকে সরে এসে ছয় দলে স্থির হয়েছে। সম্প্রতি প্যারিসে এক ফুটবল কনফারেন্সে গিয়ে সভাপতি থাইল্যান্ড-মালয়েশিয়াসহ কয়েকটি দলকে জানুয়ারিতে দল পাঠানোর মৌখিক সম্মতি নিয়ে ফিরেছেন। তাদের এই সম্মতিতেই জানুয়ারিতে টুর্নামেন্টটি করতে চাইছে বাফুফে। টুর্নামেন্টের স্বত্ব চ্যানেল নাইন কিনলেও টিকিট বিক্রির সমুদয় অর্থ পাবে বাফুফে। এদিকে ফুটবলকে বিকেন্দ্রীকরণ করার জন্যই ঢাকার বাইরের একটি ভেন্যুকে বেছে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। ‘ফুটবলকে সারা দেশে ছড়িয়ে দিতে বঙ্গবন্ধু কাপের কয়েকটি ম্যাচ ঢাকার বাইরে অনুষ্ঠিত হবে। তবে কোথায় কোথায় অনুষ্ঠিত হবে তা এখনই বলতে পারেননি বাফুফে’র এই সিনিয়র সহ-সভাপতি। তবে আগামী ১০ই নভেম্বরের মধ্যে সবকিছুই চূড়ান্ত হবে বলে জানান তিনি। এদিকে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের জন্য কমিটিও গঠন করেছে বাফুফে’র নির্বাহী কমিটি। কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে সভাপতি কাজী মোহাম্মদ সালাউদ্দিনকে আর সদস্য সচিব হিসেবে থাকছেন আব্দুস সালাম মুর্শেদী। 

সোর্সঃ ইন্টারনেট

No Responses

Write a response