চলে গেলেন নৃত্যশিল্পী সিতারা দেবী

sitara_deadচলে গেলেন ভারতের কিংবদন্তী কত্থক নৃত্যশিল্পী সিতারা দেবী। মঙ্গলবার সকালে মুম্বইয়ের যশলোক হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাসত্যাগ করেন তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৯৪ বছর। বেশ কিছুদিন ধরেই হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। সোমবার সকাল থেকে অবস্থার অবনতি হওয়ায় ভেন্টিলেটরে রাখা  হয়েছিল তাকে। ১৯২০ সালে কলকাতায় ব্রাহ্মণ কথাকার সুখদেব মহারাজের পরিবারে জন্ম সিতারা দেবীর। জন্মের সময় তার নাম ছিল ধন্নোলক্ষ্মী। মুম্বইতে তার ৩ ঘণ্টা টানা নাচের অনুষ্ঠান দেখে মুগ্ধ হয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। তাকে উপহার দিয়েছিলেন একটি শাল ও ৫০ রুপি। কিন্তু সিতারা দেবী উপহার না নিয়ে আশীর্বাদ নিয়েছিলেন কবির কাছ থেকে। প্রথমে মুঘল-এ আজমের পরিচালক কে আসিফ ও পরে প্রতাপ বারোটকে বিয়ে করলেও কোনও বিয়েই সুখের হয়নি তার। সেখান থেকেই নিজেকে আরও বেশি ডুবিয়ে রাখেন নাচে। বলিউডে কত্থক নাচ জনপ্রিয় করে তুলেছিলেন সিতারা দেবী। উষা হরণ, নাগিনা, রোটি, ওয়তন, অঞ্জলি ছবিতে তার নাচের মাধ্যমে মুগ্ধ করেছেন দর্শকদের। মাদার ইন্ডিয়া ছবিতে হোলির গানে তার নাচ ছিলে বলিউডে কেরিয়ারের শেষ নাচ। এরপর বলিউড থেকে সরে গিয়ে ক্লাসিকাল ডান্সার হিসেবেই নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন তিনি। সংগীত নাটক একাডেমি, পদ্মশ্রী, কালিদাস সম্মানসহ অনেক পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন তিনি। আগামী বৃহষ্পতিবার তার পুত্র বিদেশ থেকে ফিরে এলে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হবে।

সোর্সঃ ইন্টারনেট

No Responses

Write a response