গিনেস বুক অফ ওয়াল্ড রেকডস>>চুলের বাহার

এই পোস্ট 7 of 24 পর্বে অন্তর্ভুক্ত গিনেস বুক অফ ওয়াল্ড রেকডস


প্রাচীনকাল থেকেই নারীর চুলের
নানা উপমা দিয়েছেন কবি-
সাহিত্যিকরা। তাঁরা চীনের
জি কুইপিংয়ের চুল দেখলে কী বলতেন?
তাঁর চুল যে অনেক লম্বা!
মেপে দেখা গেল, এমন দীঘল কেশ বিশ্বের আর কোনো নারীর নেই। লম্বায়
প্রায় সাড়ে ১৮ ফুট!
লম্বা চুলের শখ অনেক চীনা নারীরই
আছে। পাঁচ থেকে ছয় ফুট লম্বা চুলের
অধিকারীর সংখ্যাও সেখানে অনেক।
তাই রেকর্ডধারীর বাস যে সেখানেই
হবে, তা তো জানা কথা।
গুয়াংজি প্রদেশের জি কুইপিংয়ের চুলের দৈর্ঘ্য কাঁটায় কাঁটায় ১৮ দশমিক ৫৫
ফুট। গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড
রেকর্ডসে উঠেছে তাঁর নাম। ১৯৭৩
সালে বয়স যখন ১৩, তখন থেকেই চুল বড়
করতে শুরু করেন তিনি। ২০০৪ সালেই
নাম উঠে যায় রেকর্ডের খাতায়। চুল এত লম্বা হওয়ার পরেও তা যথেষ্ট সুন্দর ও
পরিষ্কার রেখেছেন জি কুইপিং।
জানালেন, এত লম্বা চুলের যত্ন
নিতে অনেক সময় চলে যায়। এর জন্য
রীতিমতো সহকারীর প্রয়োজন পড়ে। ৩০
বছর ধরে বাড়ছে তাঁর চুল। আর তাই হাঁটাচলার সময়ও এতটা দিন বেশ
ঝামেলা পোহাতে হয়েছে কুইপিংকে।
কিন্তু রেকর্ডের কাছে তো তা নস্যি।
এখন রাস্তায় বের হলে তাঁর চুল
বয়ে বেড়ায় এক সহকারী!

1

No Responses

Write a response