কিসে প্রিয়াংকার এতো ভয়?

কিসে প্রিয়াংকার এতো ভয়?বলিউডের সেরা অভিনেত্রীদের একজন। অবেদনময়ী উপস্থাপন আর সুনিপুন অভিনয় শৈলী দিয়ে মন কেরেছেন হাজারো মানুষের। কিন্তু এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী ‘বর্ণবিদ্বেষ’ নিয়ে সব সময় ভয়ে থাকেন সাবেক বিশ্বসুন্দরী ও বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াংকা চোপড়া। কারণ কৈশোরে অনেকবার তিনি বর্ণবিদ্বেষের শিকার হয়েছিলেন। সে কারণে এখনো শ্বেতাঙ্গদের দেশে গেলে তার মধ্যে বর্ণবাদ নিয়ে আতঙ্ক দেখা দেয়। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন প্রিয়াংকা।

জানা যায়, ১৬ বছর বয়সে প্রথমবার তাকে বর্ণবাদের মতো নির্মম সত্যের মুখোমুখি হতে হয়। তখন তিনি আমেরিকার বোস্টনের একটি স্কুলে ভর্তির হওয়ার জন্য চেষ্টা করছিলেন। শুধু তাই নয়, কৃষ্ণাঙ্গী হওয়ার কারণে প্রিয়াংকাকে অনেকবার স্কুলে নিপীড়নের শিকার হতে হয়েছে।

বলিউডের গণ্ডি পেরিয়ে গানের সুবাদে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সমাদৃত হওয়ার পরও বর্ণবাদ নিয়ে তার আতঙ্ক কাটেনি। এ প্রসঙ্গে ৩২ বছর বয়সী প্রিয়াংকা বলেন, ‘কৈশোরে কয়েক বছর বোস্টনের এক স্কুলে পড়েছিলাম। সেখানে সবাই আমাকে ব্রাউনি (কালো চামড়া) বলে উপহাস করত। তাই আমি ইউরোপে যেতে কখনই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি না। কারণ আমার মনে হয়, ওইসব দেশে গেলেই বুঝি শ্বেতাঙ্গদের তীর্যক কোনো মন্তব্য শুনতে হবে।’

সূত্রটি আরো জানিয়েছে, সম্প্রতি আমেরিকার একটি ফুটবল লিগের খেলা দেখতে গিয়ে আরো একবার বর্ণবৈষম্যমূলক মন্তব্যের শিকার হয়েছিলেন প্রিয়াংকা। মাঠে খেলা শুরুর আগে কয়েকজন দর্শক তার সঙ্গে বর্ণবৈষম্যমূলক আচরণ করেন। দর্শকরা তাকে কৃষ্ণাঙ্গী বলেও গালি দেয়।

উল্লেখ্য, এর আগে বলিউড তারকাদের মধ্যে অভিনেত্রী শিল্পা শেঠিও ‘বিগ ব্রাদার’ রিয়ালিটি শোতে বর্ণবাদের শিকার হয়েছিলেন। বর্তমানে প্রিয়াংকা চোপড়া ‘মেরি কম’ ছবির প্রচারণা নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন।

No Responses

Write a response