এবার আমাদের দেশে তৈরি স্মার্ট ফোন “ওকে মোবাইল”

আসসালামু আলাইকুম কেমন আছেন সবাই? আশা করি ভালোই আছেন আমিও আল্লাহর রহমতে ভালই আছিআবারও হাজির হলাম আপনাদের সামনে নতুন কিছু নিয়ে এবার আসুন শুরু করি…

দেশে তৈরি মোবাইল ফোনের হ্যান্ডসেট ‘ওকে মোবাইল’। বাংলাদেশ টেলিফোন শিল্প সংস্থার (টেসিস) সহযোগিতায় এ মোবাইল ফোনসেট তৈরি ও বাজারজাত করা হচ্ছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সোনারগাঁও হোটেলে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এ মোবাইল ফোন ব্র্যান্ডের উদ্বোধন করা হয়েছে। হ্যান্ডসেটটির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হচ্ছেন অভিনেত্রী তারিন।ওকে মোবাইল ফোন ব্র্যান্ডের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সচিব আবু বকর সিদ্দিকী, ওকে মোবাইল লিমিটেডের চেয়ারম্যান খন্দকার জামিল উদ্দিন, ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাহিদ নওরিন জাহান, সিইও মজিবুর রহমান, অভিনেতা আফজাল হোসেন প্রমুখ।

আয়োজকরা জানায়, প্রারায় চার বছর আগে বাংলাদেশে মোবাইল ফোন তৈরির চিন্তাভাবনা শুরু করেন কাজী জসিমুল ইসলাম। তাঁর দীর্ঘ চিন্তার ফসল এ মোবাইল ফোনসেট। পরে পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশিপের (পিপিপি) আওতায় টেলিফোন শিল্প সংস্থার কম্পাউন্ডে মোবাইল ফোন অ্যাসেম্বলি প্লান্ট তৈরির জন্য সরকারের সঙ্গে চুক্তি হয়। শুরুতেই ওকে মোবাইল কম্পানি চারটি মডেলের হ্যান্ডসেট বাজারে নিয়ে এসেছে। এ ছাড়া ট্যাব, পিএসটিএন হ্যান্ডসেট ও ইন্টারনেট মডেম ইত্যাদি দেশে তৈরি ও বাজারজাত করা হবে।

খন্দকার জামিল উদ্দিন বলেন, ‘ঈদের আগেই এই সেটগুলো পরিচিত করতে চারটি মডেল চালু হচ্ছে। প্লান্ট পুরোপুরি চালু হলে ভালোভাবে বাজারজাত শুরু হবে।’

ঢাকায় দুটি সেলস অ্যান্ড সার্ভিস সেন্টার রয়েছে। একটি মোতালেব প্লাজায় এবং অন্যটি সুন্দরবন স্কয়ারে। সারা দেশে পর্যায়ক্রমে ১৬টি আউটলেট প্রতিষ্ঠা করা হবে। পাশাপাশি ৩৪টি ব্র্যান্ডেড আউটলেট তৃতীয় পক্ষের দ্বারা পরিচালিত হবে। মোবাইলের বিভিন্ন সমস্যা ও অভিযোগ সমাধানে থাকবে নিজস্ব কলসেন্টার; যেখানে হটলাইন ও ই-মেইলের মাধ্যমে অভিযোগ জানানো এবং তাৎক্ষণিক সমাধান পাওয়া যাবে।

ধন্যবাদ সবাইকে কষ্ট করে টিউনটি পড়ার জন্য ।

ফরেক্স করে কোটি আয় করতে যান কিন্তু পারছেন না । ভাবছেন কোথায় থেকে শিখবেন আপনার জন্য নিয়ে এলাম আমাদের সর্ব চেষ্টার এই বাংলা ফরেক্স সাইট ভিজিট করুন এখানে

ফেসবুকে আমি এখানে

1