এবারের বিশ্বকাপের ফাইনালে আম্পায়ারের দায়িত্বে থাকবেন শ্রীলংকার কুমার ধর্মসেনা ও ইংল্যান্ডের রিচার্ড কেটলবরো

ampearএবারের বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছিল উপমহাদেশের চারটি দলই। কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে একে একে বিদায় নেয় শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ ও পাকিস্তান। ভারত অবশ্য আরেক ধাপ এগিয়েছিল। তবে সেমিফাইনাল থেকেই বিদায় নিতে হলো ধোনির দলকেও। কাজেই ২৯ মার্চ ফাইনালে লড়বে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড। মেলবোর্নে ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচে আম্পায়ারের দায়িত্বে থাকবেন শ্রীলংকার কুমার ধর্মসেনা ও ইংল্যান্ডের রিচার্ড কেটলবরো। কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের ম্যাচের আম্পায়ার ইংল্যান্ডের ইয়ান গোল্ডও রয়েছেন ফাইনালে। বাজে আম্পায়ারিং করে বাংলাদেশকে হারানোর অন্যতম হোতা গোল্ড ফাইনালে থাকবেন ফোর্থ আম্পায়ারের দায়িত্বে।

এছাড়া টিভি আম্পায়ার হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকার মরিস এরাসমাস ও ম্যাচ রেফারি থাকবেন শ্রীলংকার রঞ্জন মাদুগালে। আইসিসি শুক্রবার এক বিজ্ঞপ্তিতে আম্পায়ারদের তালিকা প্রকাশ করে।

সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া দ্বিতীয় সেমিফাইনালে আম্পায়ারিং করেছেন ধর্মসেনা ও কেটলবরো। বেশ কয়েকটা গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় ভালো সিদ্ধান্ত দিয়েছেন তারা। ধর্মসেনা ২০০৯ সালে ভারত ও শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আম্পায়ারিং শুরু করেন। এখন পর্যন্ত তিনি ৬৪ ম্যাচে ফিল্ড আম্পায়ারিং ও ২৯ ম্যাচে টিভি আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করেছেন।

এবার বিশ্বকাপের উদ্বোধনী দিনে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের ম্যাচটিও পরিচালনা করেন তিনি। ২০১৫ বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সাতটি ম্যাচে আম্পায়ারিং করেছেন শ্রীলংকার এই সাবেক ক্রিকেটার। ২০১১ বিশ্বকাপে মিরপুরে বাংলাদেশ ও ভারতের প্রথম ম্যাচেও আম্পায়ারিং করেন তিনি। এবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের গ্র“পপর্বের শেষ ম্যাচেও আম্পায়ারিং করেছিলেন ধর্মসেনা।

সোর্সঃ ইন্টারনেট

No Responses

Write a response