ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে যারা পড়া-লেখা করতে চান এবং যারা পড়া-লেখা করেন।শুধু তাদের জন্য….মিস করলেই মিস

যারা ইঞ্জিনিয়ারিং এ পড়েন বা পড়েতে চান। তাদের IEB সর্ম্পকে জানা প্রয়োজন। আমি আজ আপনাদের সাথে IEB কি? IEB কেন? ইত্যাদি বিষয় আলোচনা করব। আর বেশি কতা না বলে কাজের কথায় আসা যাক।

১।IEB হচ্ছে The Institute of Engineer Bangladesh (IEB)। এটি হচ্ছে ইঞ্জিনিয়ার দের একটা সংস্থা বা প্রতিষ্টান। একান থেকে বিভিন্ন ইউনিভার্সিটির বিভিন্ন ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয় এর IEB অনুমোদন বা মেম্বারশীপ দেওয়া হয়।

Logojpg

২।এই IEB এর অনুমোদিত বা মেম্বারশীপ যে ইনিভার্সিটির যে ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয় এর আছে। শুদু সেই ইউনিভার্সিটির সেই ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্র/ছাত্রীরা নামের প্রথমে ইঞ্জিনিয়ার বা প্রকৌশলী টাইটেল টা ব্যবহার করতে পারবে । তবে থাকে কয়েক বছর জব এবং তাকে আবার ব্যক্তিগত ভাবে IEB সদস্য বা মেম্বার হতে হবে।

৩।IEB মেম্বারশীপ বা সদস্য ছাড়া আপনি বড় বড় প্রজেক্ট বা প্লান বা নকশা ইত্যাদিত কাজ করার জন্য অনুমোদন দিতে পারবেন না বা দেওয়ার ক্ষমতা আপনার থাকবে না। যেমন আমি আপনাদেরকে সিভিল বিভাগ নিয়ে একটা উদাহরন দিচ্ছি। আপনি যদি একটা দশ তলা বিল্ডিং এর নকশা করার কাজ পান তা হলে আপনার যদি IEB মেম্বার বা সদস্যশীপ না তাকে তা হলে আপনি সেই বিল্ডিংটির নকশয় IEB মেম্বার বা সদস্যশীপ এর সাক্ষর না তাকলে কাজ করার জন্য (রাজউক, সিটি কর্পোরেশন, পৌরসভা ইত্যাদি) কোন ছাড়পত্র বা অনুমোদন পাবেন না। এই ভাবে প্রতিটি বিভাগের একই অবস্তা।

৪।আর আপনি যদি IEB মেম্বারশিপ ছাড়া কাজ করেন আর কোন ঝামেলা হয়। তা হলে আপনি আইন গত সমস্যায় পরতে পারেন।

৫।আমি এখন বলব কোন কোন ইউনিভার্সিটির কোন বিষয় IEB এর মেম্বারশীপ আছে। আমি IEB মেম্বারশীপ ইউনিভার্সিটি গুলোকে দুটি ভাগে ভাগ করব।

ক। পাবলিক ইউনিভার্সিটি

খ। প্রাইভেট ইউনিভার্সিটি

ক। পাবলিক ইউনিভার্সিটি

এই ইউনিভার্সিটিগুলোর সকল বিষয় বা বিভাগ এর IEB মেম্বারশীপ বা সদস্যশীপ আছে।

BUET
CUET
DUET
KUET
RUET

এই ইউনিভার্সিটিগুলোর কিছু কিছু বিষয় বা বিভাগ এর IEB মেম্বারশীপ বা সদস্যশীপ আছে।

SUST এর বিভাগ সমূহ CE, CE(chemical)।
MIST এর বিভাগ সমূহ CE, EECE, ME।

খ। প্রাইভেট ইউনিভার্সিটি

AIUB এর বিভাগ সমূহ ECE, EEE, CSE।
BRAC এর বিভাগ সমূহ ECE, CSE।
DIU(daffodil) এর বিভাগ সমূহ CSE(Day shift)।
EWU এর বিভাগ সমূহ EEE।
IIUC এর বিভাগ সমূহ CCE, CSE।
UAP এর বিভাগ সমূহ CE।
UIU এর বিভাগ সমূহ EEE।
AUST এর বিভাগ সমূহ CE, EEE, CSE। (এখানে আমি একটা কথা বলতে চাই যে আমি শুনে ছিলাম যে আহছানউল্লাহ ইউনিভার্সিটি সাইন্স অ্যান্ড টেকনলোজি এর সকল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের IEB মেম্বারশীপ বা সদস্যশীপ আছে । বাট এইটা বিষয় আমি কনফার্ম না। তবে আমি যে বিভাগ সমূহ উল্লেখ করেছি সেইগুলো একশ ভাগ কনফার্ম যে এই গুলোর IEB মেম্বারশীপ বা সদস্যশীপ আছে।)

৬।

তবে আমি সবাইকে বলতে চাই। যে আপনারা এই তথ্যটি পাওয়ার পর যারা উপরের এই ইউনিভার্সিটির একটিতেও পড়েন না। বাট ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ নিয়ে পড়ছেন। তাদের উদ্দেশে আমি বলছি । আপনি ভাল কিছু করেন, ক্রিয়েটিভ ধরনে কিছু করেন, যদি আপনার ভাল কিছু করার ইচ্ছা তাকে তা হলে আপনাকে উপরের কোন নিয়ম আপনাকে আটকাতে পারবে না। আপনাকে ভাল কিছু করতে ( যেমন-ভাল জব, ভাল কোম্পানীর জন্ম দিতে, ভাল টাকা ইনকাম করতে ইত্যাদি ) হলে । ভাল কাজ জানতে হবে। ভাল মাইন্ডের মানুষ হতে হবে। ভাল কিছু করেন । ভাল কিছু করতে ভাল সাটিফির্কেট এর প্রয়োজন হয় না।

৭।

আমি সবাইকে বলতে চাই। যে আপনারা যারা ইঞ্জিনিয়ারিং এ পড়ছেন কিন্তু উপরের ইউনিভার্সিটিগুলোর IEB এর মেম্বারশীপ বিভিন্ন বিভাগের মদ্দে একটাতেও পড়ছেন না। আপনার কমান্ট এর মাধ্যমে চেছা-মেছি, ছিল্লা-ছিল্লি করবেন না। আপনাদের মনে একটু আগাত লাগতে পারে তাই বলে সত্য জিনিষ জানতে বা মানতে রাজি হবেন না কেন। আসা করি সবাই খুব বিনয়ের সাতে আমার সঙ্গে এক মত হবেন। না হলে কোন বাধা নেই। তবে আজে বাজে কমেন্ট করবেন না।

৮।আমি আমার টিউনএ ইউনিভার্সিটি এবং বিভাগ এর নাম সংক্ষেপে উল্লেখ করেছি । কারো যদি বুঝতে অসুবিধা হয়। তাহলে বলবেন।

৯।আমার এই টিউন বিভিন্ন ইউনিভার্সিটির ছাত্র/ছাত্রীরা বা বিভিন্ন মহলের মানুষ পড়তে পারেন। তবে আমার এই টিউনটার সাথে আপনারা পুর পুরি এক মত নাও হতে পারেন। তবে আমাকে আমার এই টিউনএ কোন কারেকসন করার জন্য বলবেন না। আমার কাছে যদি যুক্তি সংঙ্গত মনে হয় তা হলে আমি তা কারেকসন করব।

১০।আমার এই টিউনটি সম্পূর্ন পড়ে তার পর কমেন্ট করবেন। তার আগে কমেন্ট করবেন না।

১১।আমি সর্বশেষ একটি কথা বলতে চাই যে সবাই মন দিয়ে পড়া-লেখা করেন, ভাল কিছু করেন দেন ভাল কিছু হতে পারবেন । কারন অনেক উদাহরন আছে যে যে বিভাগ নিয়ে লেখা-পড়া করেছে সে সেই বিভাগের দারে কাছে নেই অতচ সে অন্য বিভাগে শীর্ষ স্থানে অস্তান করছে।

No Responses

Write a response