আমরাই এগিয়ে থাকবো: এনামুল হক

anamul swadesh24ওয়ানডে সিরিজ শুরুর আগে বুধবার বিসিবি একাদশের সাথে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে জিম্বাবুয়ে। শুক্রবার থেকে শুরু হওয়া পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের আগেই জিম্বাবুয়ে শিবিরে আরেকটি ধাক্কা হয়ে এসেছে বিসিবি একাদশের সাথে ৮৮ রানের বড় ব্যবধানের পরাজয়। বিসিবি একাদশে ছিলেন ওয়ানডে স্কোয়াডে জায়গা পাওয়া মাত্র দুজন ক্রিকেটার। এনামুল হক বিজয় আর সাব্বির রহমান। আর তাতেই নাকাল হয়েছে জিম্বাবুয়ে। যদিও এনামুল ও সাব্বিরের পারফরম্যান্স আহা মরি কিছু ছিল না। সাব্বির ব্যাট হাতে করেছেন ২২ রান। আর বল হাতে নিয়েছেন দুটি উইকেট। অন্যদিকে বিসিবি একাদশের অধিনায়ক এনামুল হক বিজয় করেছেন মাত্র ১৩ রান। তবে অধিনায়কত্বটা করেছেন দারুণ। পেসারদের প্রতি আস্থা রেখেই তুলেছেন জয়।

ম্যাচ জয়ের পর মিডিয়াকর্মীদের মুখোমুখি হন বিসিবি একাদশের অধিনায়ক এনামুল হক বিজয়। কথা বলেন খুব কাছ থেকে দেখা এবারের জিম্বাবুয়ে ওয়ানডে দল, নিজের পারফরম্যান্স ও ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশ দলের সম্ভাবনা নিয়ে। মিডিয়াকর্মীদের সাথে এনামুল হক বিজয়ের প্রশ্নোত্তর পর্বটি প্রিয়.কম এর পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো:

প্রশ্ন: টেস্টের চেয়ে জিম্বাবুয়ের ওয়ানডে দল তো একটু কঠিনই হবে। আপনি তো আজ খেললেন। কী বুঝলেন?
এনামুল: আসলে আমার কাছে মনে হয় ওয়ানডে ম্যাচ যে কোনো বোলার বা ব্যাটসম্যানের মোমেন্টাম পাল্টে দেয়। সেক্ষেত্রে বলবো, আমাদের চিন্তা করার কোনো কারণ নেই। টিম হিসেবে যদি ঠিক মতো পারফর্ম করি, তাহলে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে পারে। আমার কাছে মনে হয় আমরা অনেকটাই এগিয়ে থাকবো।

প্রশ্ন: দলের জন্য কী মেসেজ থাকবে?
এনামুল: অবশ্যই থাকবে। উইকেট আজ পেস বোলার সহায়ক ছিল। পেসাররা অনেক ভালো বল করছে। স্পিনাররা তিন চারজন বোলিং করেছে। পেসাররা এই উইকেটে ঠিক জায়গা বল করলে ভালো কিছু হবে। আল-আমিন, মাশরাফি, রুবেল ভাইরা যদি ঠিক জায়গায় বল করতে পারে, তাহলে ইনশাল্লাহ ভালো কিছুই হবে।

প্রশ্ন:আমাদের সামনের সারির কোনো খেলোয়াড় আজ খেলেনি, তারপরও রেজাল্ট এসেছে। এটা কী আমাদের উজ্জীবিত রূপের কারণে, নাকি ওরা ডিমারালাইজড?
এনামুল: দুটোই হতে পারে। ওদের দলে আজ দু’তিনজন প্রধান খেলোয়াড় খেলে নাই। সেক্ষেত্রে আমার কাছে মনে হয়, ওরা যদি ব্যাট করে তাহলে টিমটা আরো বেশি শক্তিশালী হবে।আমার খুব ভালো লেগেছে যে, উইকেট সহায়ক ছিল। আমাদের পেস বোলাররা বেশি ভালো বোলিং করেছে। আর স্পিনাররা যদি অ্যাড হয়…।

প্রশ্ন: আপনি তো ওয়ানডে দলে ফিরলেন, এ রকম ফেরায় কী নিজেকে আউটসাইডার মনে হয়। মানিয়ে নিতে কী সমস্যা হয়?
এনামুল: চেষ্টা করছি মানিয়ে নিতে। অনেক অনুশীলন হচ্ছে। ইনশাল্লাহ চেষ্টা করবো ভালো কিছু করার। চেষ্টা করবো যতটুকু পারি, খেলার আগেই যেন অ্যাডজাস্ট করে নিতে পারি।

প্রশ্ন: মেইন টিমের জন্য আপনার কোনো স্পেসেফিক মেসেজ থাকবে, ক্যাপ্টেন অথবা কোচের জন্য?
এনামুল: অবশ্যই। ওদের সম্পর্কে আমরা মোটামুটি জানি। ভিডিও এনালাইসিস হয়েছে। আজকের ম্যাচের ভিডিও অ্যানালাইসিসটাও দেখবো। কোথায় কোথায় আমাদের দূর্বলতা আছে, তখন হয় তো ভালোভাবে দেখতে পারবো। কিভাবে বোলিং করা যায়, কিভাবে ওদের বিরুদ্ধে ব্যাটিং করা যায়, তখন আরো ভালো মতো বুঝতে পারবো।

প্রশ্ন: বলছিলেন ওরা খুব মেন্টালি ডাউন?
এনামুল: যদি বাংলাদেশ টিমের কথা যদি বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে ২০১৪ সালের প্রথমদিকে আমরা অনেক ম্যাচ হেরেছি। একটা টিম যতই ভালো হোক না কেন, যখন ক্লোজ ম্যাচ দুই তিনটা হেরে যায়, তখন চার নম্বর, পাঁচ নম্বর ম্যাচে একটু ম্যানটালি ডাউন থাকে। এটা একটা ব্যাপার। সেক্ষেত্রে ওই টিমের কাছে যদি তাই মনে হয় পর পর ওরা হারছে, সেক্ষেত্রে মেন্টালি ডাউন তো হবেই। আর সে ব্যাপারটা আমাদের টার্নিং পয়েন্ট হিসেবে কাজে লাগাতে হবে।

প্রশ্ন: এখন কী মনে হয় ওয়ানডে সিরিজ প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ হবে?
এনামুল: যদি আমরা পারফেক্টলি পারফর্ম করি, তাহলে বড় ব্যবধানে সিরিজটা আমরা জিতবো।

প্রশ্ন: দু’দিন সন্ধ্যায় অনুশীলন করলেন, ডিউ কী ফ্যাক্টর আসলে?
এনামুল: ডিউ হয়তো একটা ফ্যাক্টর হবে। আমার কাছে মনে হয়, বলটা বার বার মুছে রাখা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ন হবে। আমরা চেষ্টা করবো তা করার। টসটাও ভাইটাল হতে পারে।

প্রশ্ন: জিম্বাবুয়ে সিরিজে আপনার ব্যক্তিগত কোনো লক্ষ্য থাকবে কী?
এনামুল: আসলে একজন ব্যাটসম্যানের আউট হতে একটা বলই লাগে। আমি আসলে এ রকম কোনো চিন্তা করছি না। তারপরও ব্যক্তিগত একটা লক্ষ্য তো থাকেই। দেখা যাক সিরিজ শেষে সেটা পূরণ করতে পারি কি না।

প্রশ্ন: বিশ্বকাপের আগে এটাই হয় তো আপনাদের শেষ সিরিজ। এই দলে নাসির নেই, রাজ্জাক নেই আপনাদের নিজেদের মধ্যে কী কোনো ধরনে কমপিটিশন হবে জায়গাটা ধরে রাখার?
এনামুল: আসলে এভাবে যদি কেউ চিন্তা করে তাহলে দলগত পারফর্মটা হয়ে উঠবে না। আমার কাছে মনে হয়, সবার আগে টিম ফাস্ট। টিম যখন রেজাল্ট করে, তাহলে ভালো পারফর্ম এমনিতেই বের হয়ে আসে। আমার কাছে মনে হয়, ব্যক্তিগত চিন্তা না করে টিম কী চাচ্ছে, কীভাবে চায় সেভাবে প্রতিটি বোলার, ব্যাটসম্যানের কাজ করা উচিত।

সোর্সঃ ইন্টারনেট

No Responses

Write a response