‘আন্ডারওয়ার্ল্ডের তালিকায় বলিউড অভিনেতা শাহরুখ’

এসব ব্যক্তি আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন রবি পূজারি’র হয়ে কাজ করে বলে বুধবার পুলিশের বরাত দিয়ে জানিয়েছে এনডিটিভি।

পূজারি বিদেশ থেকে দল পরিচালনা করেন বলে ধারণা করা হয়।

সোমবার এই দলটিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। অক্টোবরে মুক্তি পাওয়া শাহরুখের ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ ছবিসহ বেশ কয়েকটি ছবির পরিবেশক করিম মোরানির মুম্বাইয়ের বাসায় গুলিবর্ষণের অভিযোগে এদের গ্রেপ্তার করা হয়।

অগাস্টে মোরানির বাসায় গুলিবর্ষণ করেছিল অজ্ঞাত দুষ্কৃতকারীরা।

পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে, জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তার হওয়া সন্দেহভাজনরা জানিয়েছে, মোরানির বাসায় গুলিবর্ষণের পর ফারাহ খানের বাসায় ও শাহরুখ খানের অফিসের ওপর নজর রাখতে দলকে নিদের্শ দেয় পূজারি।

এছাড়া দলটি দুইমাস ধরে মহেশ ভাটের চলাফেরা নজরদারি করছিল বলে জানিয়েছে।

এ বিষয়ে শাহরুখ বা ফারাহ খান কেউ কোনো মন্তব্য করেননি। মহেশ ভাট বলেছেন, “মুম্বাই পুলিশ খুব স্মার্ট, কোনো কিছু ঘটার আগেই এসব হুমকি থামিয়ে দেবেন তারা।”

মুম্বাই পুলিশের অপরাধ শাখার যুগ্ম কমিশনার সদানন্দ দাতে বলেছেন, “আমাদের পুলিশ কর্মকর্তাদের কাছে তথ্য আছে, এই সাতজন অস্ত্র বহন করছিল ও বলিউডের একজন প্রখ্যাত ব্যক্তিত্বকে হত্যার চেষ্টা করছিল। এই হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করে পরবর্তীতে চাঁদা নেয়ার পথ সুগম করার পরিকল্পনা করেছিল তারা।”

রবি পূজারি নিয়মিত বলিউডের বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে চাঁদা দাবি করে আসছে বলে অভিযোগ আছে। ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ ছবির আন্তর্জাতিক স্বত্ত্ব তাকে দেয়া হয়নি বলে পূজারি ক্ষুব্ধ ছিল বলে জানা গেছে।

শাহরুখকে সঙ্গে নিয়ে করা ছবিটির ব্যাপক আন্তর্জাতিক প্রচারণা অভিযান থেকে প্রাপ্ত আয়ের একটি অংশও পূজারি দাবি করেছিলেন বলেও অভিযোগ আছে।

সোর্সঃ ইন্টারনেট

No Responses

Write a response