আইনজীবীর সনদ পাবে না তিনটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শীক্ষার্থীরা

ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মাহবুব হোসেনপ্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় দারুল ইহসান, ইবাইস ও আমেরিকান বাংলাদেশ হতে পাস করা ছাত্ররা বার কাউন্সিলের আইনজীবী সনদ পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে না বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ বার কাউন্সিল।

বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সভাকক্ষে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে বার কাউন্সিলের

ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মাহবুব হোসেন

একথা জানান। এ সময় এনরোলমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনসহ বারের অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

তিনি জানান, উচ্চ আদালতে মামলা থাকায় এই তিন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করা ছাত্ররা সনদের জন্য বার কাউন্সিলে পরীক্ষা দিতে পারব

প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় দারুল ইহসান, ইবাইস ও আমেরিকান বাংলাদেশ হতে পাস করা ছাত্ররা বার কাউন্সিলের আইনজীবী সনদ পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে না বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ বার কাউন্সিল।

বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সভাকক্ষে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মাহবুব হোসেন একথা জানান। এ সময় এনরোলমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনসহ বারের অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

তিনি জানান, উচ্চ আদালতে মামলা থাকায় এই তিন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করা ছাত্ররা সনদের জন্য বার কাউন্সিলে পরীক্ষা দিতে পারবে না।

ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন জানান, অতিশ দীপঙ্কর বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাপারে তদন্ত চলছে। তাই এই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাপারে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এছাড়া বাকি ৩৬টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বার কাউন্সিলের আইনজীবী সনদ পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে এর আগে গত ৭ সেপ্টেম্বর বার কাউন্সিলের এক সভায় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয় সাতটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১টি শাখা থেকে পাস করা আইনের ছাত্ররা পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন না।

সাতটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১টি শাখার বিষয়ে শুনানি হওয়ার কথা ছিল সেগুলো হলো- দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয়ের ধানমন্ডি, উত্তরা, মিরপুর-১০ ও আশুলিয়া শাখা, অতীশ দীপঙ্কর ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির বনানী শাখা, প্রাইম বিশ্ববিদ্যালয়ের মিরপুর-১ ও উত্তরা শাখা, ইবাইস বিশ্ববিদ্যালয়ের উত্তরা শাখা, নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের বনানী শাখা, আমেরিকা বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মগেট শাখা, বিজিসি ট্রাস্ট বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ চট্টগ্রাম।

পরবর্তীতে বার কাউন্সিল চুড়ান্ত শুনানি করে তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদেরকে অযোগ্য ঘোষণা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন জানান, অতিশ দীপঙ্কর বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাপারে তদন্ত চলছে। তাই এই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাপারে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এছাড়া বাকি ৩৬টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বার কাউন্সিলের আইনজীবী সনদ পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে এর আগে গত ৭ সেপ্টেম্বর বার কাউন্সিলের এক সভায় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয় সাতটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১টি শাখা থেকে পাস করা আইনের ছাত্ররা পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন না।

সাতটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১টি শাখার বিষয়ে শুনানি হওয়ার কথা ছিল সেগুলো হলো- দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয়ের ধানমন্ডি, উত্তরা, মিরপুর-১০ ও আশুলিয়া শাখা, অতীশ দীপঙ্কর ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির বনানী শাখা, প্রাইম বিশ্ববিদ্যালয়ের মিরপুর-১ ও উত্তরা শাখা, ইবাইস বিশ্ববিদ্যালয়ের উত্তরা শাখা, নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের বনানী শাখা, আমেরিকা বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মগেট শাখা, বিজিসি ট্রাস্ট বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ চট্টগ্রাম।

পরবর্তীতে বার কাউন্সিল চুড়ান্ত শুনানি করে তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদেরকে অযোগ্য ঘোষণা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

 

Posted by Ab Emon

সোর্সঃ ইন্টারনেট

No Responses

Write a response